পৃথিবীর সবচাইতে দ্রুতগামী প্রাণী

পৃথিবীর সবচাইতে দ্রুতগামী কিছু প্রানী
পৃথিবীর সবচাইতে দ্রুতগামী কিছু প্রানী

দ্রুতগামী প্রানী –  আপনি হয়তো জানেন বর্তমানে মানব জাতির মধ্যে সবচাইতে দ্রুতগামী মানুষ হচ্ছেন উসাইন বোল্ট। তবে আপনি কি জানেন প্রাণীদের মধ্যে সবচাইতে দ্রুতগামী প্রাণী আসলে কোনটি?

আজ আমরা জানবো জলে স্থলে এবং আকাশে উড্ডয়ন কারি পাখিদের মধ্যে থেকে কোন প্রানী পৃথিবীর বুকে সবচাইতে দ্রুতগামী চলতে সক্ষম।

স্থলে বাসকারি দ্রুতগামী প্রাণী – 

স্থলে বসবাস কারি সবচাইতে  দ্রুতগামী  প্রাণী হচ্ছে চিতা বাঘ। জানাযায় মাত্র তিন সেকেন্ডের ভেতরে একটি চিতা বাঘ ঘন্টায় ৯৫ কিলমিটার বেগে দৌড়ানোর সক্ষমতা রাখে। এছাড়াও ঘন্টায় এরা সর্বোচ্চ ১২০ কিলমিটার বেগে ছুটতে পারে।

এক একটি চিতা বাঘ তাদের প্রাপ্ত বয়সে ২৫ থেকে প্রায় ৬৫ কেজি পর্যন্ত হয়ে থাকে। আর এদের প্রধান খাবার মাংসাশী  হওয়ার বিভিন্ন প্রানী শিকারে এই চিতা বেশ পটু।

তবে  সবচাইতে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে একটি চিতা বাঘ যখন তার সর্বচ্চ গতি দিয়ে ছুটতে থাকে তখন সেই বাঘটি মাটি থেকে শূন্যে বেশি সময়ে ভেসে থাকে বলে জানাযায়।

মাটিতে চলা দ্বিতীয় সর্বচ্চ গতির প্রাণীটি হচ্ছে (Pronghorn) প্রোনঘোরন।  অনেকটা বিলুপ্ত এই প্রাণীটি সবচাইতে বেশি আমেরিকা মহাদেশ গুলতে দেখতে পাওয়া যায়। জানাযায় এই বিলুপ্ত প্রজাতির হরিনটি ঘন্টায় প্রায় ৮৮.৫ কিলমিটার বেগে ছুটে চলতে সক্ষম।

এই হরিনের ভেতরে আরেকটি প্রজাতি রয়েছে যাদের নাম Springbok স্প্রিংবোক। মজার বিষয় হচ্ছে সেই হরিন টিও ঘন্টায় ৮৮ কিলমিটার বেগে বা ৫৫ মাইলে ছুটে বেরাতে সক্ষম।

স্থলে বাস কারি চতুর্থ এবং পঞ্চম  দ্রুতগামী  প্রাণী হচ্ছে ব্লু ওয়াইল্ড বিস্ট এবং সিংহ। প্রাণী বিশেষজ্ঞদের মতে এই দুটি প্রানি ঘন্টায় ৮০ কিলমিটার বা ৫০ মাইল বেগে চলতে সক্ষম।

পানিতে বাসকরা সবচাইতে দ্রুতগামী  প্রানী – 

পানিতে বাস কারি সবচাইতে দ্রুতগামী মাছ হচ্ছে ব্লাক মারলিন। এটি  হচ্ছে এক ধরনের সামুদ্রিক মাছ। এদের মুখের সামনে অনেকটা ধালারো চিকন করাত থাকে। যার মাধ্যমে এরা শ্ত্রদের সাথে মোকাবেলা করতে সক্ষম। এদের আকৃতি এবং ওজন সর্বচ্চ ১৫.৩ ফিট ও ৭৫০ কেজি।

এক একটি ব্লাক মারলিন  সাগরের মাঝে ঘন্টায় সর্বোচ্চ ১৩২ কিলমিটার বেগে চলতে সক্ষম। উল্লেখ্য  এখন পর্যন্ত আটলান্টিক মহাসাগর এবং প্রশান্ত মহাসাগরে এই ব্লাক মারলিন মাছকে বেশি দেখতে পাওয়া যায়

এছাড়াও পানিতে বাস কারি  আরো যে সকল দ্রুত গামি মাছ রয়েছে  সেগুল হচ্ছে,  (Sailfish) সেলিফিশ ঘন্টায় ১০৯.১৯ কিলমিটার বেগে চলতে সক্ষম (Swordfish) সোর্ড ফিশ ঘন্টায় ৯৭ কিলমিটার বেগে অতিক্রমে সক্ষম।

পাখীদের মধ্যে সবচাইতে দ্রুতগামী পাখি – 

পৃথিবীর বুকে সবচাইতে দ্রুতগামী পাখি হচ্ছে পেরেগ্রিন ফ্যালকন বা বাজপাখি। বলা  হয় পাখিদের মধ্যে থেকে সবচাইতে বেশি বুদ্ধিমান এবং হিংস্র এই প্রানিটি সর্বদাই শিকার সংগ্রহের জন্য আকাশের একেবারে চুড়ায় উড্ডয়ন করে খাবার খুজে থাকে।

যখনি তারা তাদের প্রিয় খাবার কে উচু থেকে দেখতে পায় ঠিক তখন বেশ কৌশলে হঠাৎ করেই এরা তাদের খাবারের উপরে ঝাপিয়ে পরে। বিজ্ঞানীদের মতে এক একটি বাজ পাখি ঘন্টায় প্রায় ৩৮৯ কিলমিটার বা ২৪২ মাইল বেগে চলতে সক্ষম। যার ফলে এখন পর্যন্ত গোটা বিশ্বে প্রানীদের ভেতরে বাজ পাখি হচ্ছে সবচাইতে দ্রুতগামী প্রাণী।

এছাড়াও দ্রুত চলাচলে সক্ষম পাখিদের ভেতরে আরো যে সকল পাখি রয়েছে তারা হচ্ছে ইগল যাদের গতি বেগ ঘন্টায় ২৪০ থেকে ৩২০ কিলমিটার পর্যন্ত এবং ওয়াইট থ্রোটেড নিডলে টেল যার আকাশে উড্ডয়নের গতি বেগ হচ্ছে ঘন্টায় সর্বচ্চ ১৬৯ থেকে ১০৫ কিলমিটার পর্যন্ত।

উল্লেখ্য আমাদের মানব জাতির মধ্যে এখন পর্যন্ত দ্রুতগামী মানুষ হচ্ছে জামাইকান স্টার উসাইন বোল্ট যিনি কিনা বার্লিনে অনুষ্ঠিত ২০০৯ অলেম্পিকে ১০০ মিটার দৌড় ইভেন্তের জন্য সময় নিয়ে ছিলেন মাত্র ৯.৫৮ সেকেন্ড।

অর্থাৎ সে সময়ে তার গতি ছিল ঘন্টায় ৪৪.৭২ কিলমিটার বা ২৭.৮ মাইল। অন্যদিকে পৃথিবীর সবচাইতে দ্রুতগামী সাতারু হিসেবে ধরা হয় আমেরিকান স্টার মাইকেল ফ্লিপ্সকে ।

curious

আরো পড়ুন –

বিশ্বের-সবচাইতে দির্ঘজীবি কিছু প্রাণী !
শেয়ার করুন -

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন