খাটি মধু চেনার কিছু সহজতর উপায়

খাটি মধু চেনার কিছু সহজতর উপায়
খাটি মধু চেনার কিছু সহজতর উপায়

খাটি মধু চেনার কিছু সহজতর উপায় – মধু পছন্দ করেনা এমন মানুষ হয়তো খুজে পাওয়া যাবেনা। বিভিন্ন রোগ মুক্তি থেকে শুরু করে মধু মানুষের শরীরের জন্য অনেক উপকারি একটি তরল পিচ্ছিল পদার্থ।

তবে আসল মধু চিনতে না পারায় অথবা ভেজাল মধু ক্রয়ে করে আমরা অনেকটা সময়ে বিভ্রান্তিতে পরে থাকি। এক্ষেত্রে সেই মধুর সাথে পানি, চিনি অথবা আরো কিছু মিষ্টি দ্রবন মেশানো হয়। তাই আজ আপনাদেরকে বর্ননা করবো খাটি মধু চেনার কিছু সহজতর উপায় সম্পর্কে –

  • খাটি মধু চেনার সবচাইতে সহজতর পদ্ধতি হচ্ছে মধুকে একটি পাত্রে ফ্রিজের মধ্যে ঢেকে রেখেদিন। সেই মধুযদি খাটি হয় তাহলে সেগুল ফ্রিজে জম্বেনা। এ ক্ষেত্রে ভেজাল মধু পুরো পুরি ভাবে না জমলেও এর তলানিতে অনেকটাই শক্ত হয়ে জমে থাকবে।

  • একটুকরো কাগজ নিয়ে সেখানে কয়েক ফোটা মধু ঢেলে দিন। এর পরে সেই কাগজটিকে যে স্থানে পিঁপড়ে রয়েছে সেখানে রেখেদিন। পিঁপড়েরা যদি সেই কাগজটির মধু খেতে যায় তাহলে বুঝতে হবে সেই মধুতে ভেজাল রয়েছে। কারন খাটি মধুতে পিঁপড়েরা কখনই আসবেনা।

  •  একগ্লাস পানি নিয়ে সেখানে একটেবিল চাপচ মধু ছেড়েদিন। এর পরে সেই গ্লাসটিকে হালকা ঝাকাতে থাকুন। মধুগুল যদি গ্লাসের পানিতে গলেযায় তাহলে বুঝতে হবে সেখানে ভেজাল রয়েছে। এক্ষেত্রে গ্লাসের মধ্যে মধুগুল যদি ছোট ছোট পিন্ডের আকারে থাকে অথবা গ্লাসের তলানিতে জমে থাকে তাহলে বুঝতে হবে সেগুল আসল মধু।

  • একটি কটন বার নিয়ে তার একপ্রান্তে কিছুটা মধু লাগিয়ে সেই অংশটুকুকে আগুনের শিখায় ধরুন। যদি সেই স্থানে আগুন ধরে তাহলে বুঝতে হবে মধুগুল খাটি। এ ক্ষেত্রে যদি মধুতে আগুন জ্বলার সাথে সাথে কিছুটা শব্দ হয় তাহলে বুঝতে হবে সেখানে কিছুটা পানি মেশানো রয়েছে। আর যদি আগুন না ধরে তার মানে সেই মধুতে অনেকটাই পানি মিশ্রিত।

আসাকরি এই সকল বিষয় গুলকে আপনি পর্যবেক্ষন করে খুব সহজেই খাটি মধু বুঝতে পারবেন।

আরো পড়ুন –

রুটি নাকি ভাত ? সুস্থ থাকতে কোনটি খাবেন আপনি?
শেয়ার করুন -

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন