সঞ্চয়পত্রের মুনাফা ঠিক‌ কী পরিমাণ কমানো হয়েছে?

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা ঠিক‌ কী পরিমাণ কমানো হয়েছে?
সঞ্চয়পত্রের মুনাফা ঠিক‌ কী পরিমাণ কমানো হয়েছে?

বাংলাদেশে পাঁচ ধরণের সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ২১শে সেপ্টেম্বর প্রজ্ঞাপন জারি করে সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমানোর তথ্য জানিয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে যারা নতুন করে সঞ্চয়পত্র কিনবেন শুধু তাদের জন্যই পরিবর্তিত এই হার কার্যকর করা হবে।

আগের কেনা সঞ্চয়পত্রের ক্ষেত্রে সেটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া পর্যন্ত মুনাফার হার একই থাকবে। অর্থ্যাৎ পূর্বের মতোই। তবে মেয়াদ শেষ হয়ে যাবার পর সেটি আবার বিনিয়োগের সময় নতুন এই মুনাফার হার কার্যকর হবে।

ব্যাক্তি ও প্রাতিষ্ঠানিক উভয়ক্ষেত্রেই সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগের জন্য নতুন এই মুনাফার হার প্রযোজ্য হবে।

  • বছর মেয়াদী সঞ্চয়পত্র:

৫ বছর মেয়াদী বাংলাদেশ সঞ্চয়পত্রে বর্তমানে মেয়াদ শেষে ১১.২৮ শতাংশ মুনাফা পাওয়া যায়। নতুন নিয়মে এই মুনাফার হার কমেছে। তবে সেক্ষেত্রে এই সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগ ১৫ লাখ টাকা বা তার বেশি হতে হবে।

১৫ লাখ টাকা পর্যন্ত আগের নিয়মেই মুনাফা পাওয়া যাবে।

আর নতুন নিয়মে এই সঞ্চয়পত্রে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ করলে মেয়াদ শেষে মুনাফা আগের তুলনায় প্রায় ১ শতাংশ কম পাওয়া যাবে। নতুন হার হবে ১০.৩০%।

আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ থাকলে মুনাফার হার হবে ৯.৩০%। আরও এক শতাংশ কমে যাবে।

  • তিন মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক:

৩ বছর মেয়াদী সঞ্চপত্রে বর্তমানে মেয়াদ  শেষে মুনাফার হার ১১.০৪%। নতুন নিয়মেও ১৫ লাখ টাকা পর্যন্ত আগের নির্ধারিত হারেই মুনাফা পাওয়া যাবে।

তবে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার হার কমিয়ে করা হয়েছে ১০%।

আর এই সঞ্চয়পত্রে যাদের বিনিয়োগ ৩০ লাখ টাকার বেশি তারা মেয়াদ শেষে মুনাফা পাবেন ৯%।

  • পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফা:

অবসরভোগীদের জন্য নির্ধারিত ৫ বছর মেয়াদী পেনশনার সঞ্চয়পত্রে মেয়াদ শেষে এতদিন ১১.৭৬% হারে মুনাফা পাওয়া যেত। ১৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আগের মুনাফার হারই পাওয়া যাবে।

তবে এর চেয়ে বেশি হলে মুনাফা পাওয়া যাবে ১০.৭৫%।

আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ থাকলে এই হার আরও ১ শতাংশ কমে হবে ৯.৭৫%।

  • পরিবার সঞ্চয়পত্র:

৫ বছর মেয়াদী পরিবার সঞ্চয়পত্রে মেয়াদ শেষে মুনাফার হার বর্তমানে ১১.৫২ শতাংশ পাওয়া যায়। এখন এই সঞ্চয়পত্রে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ করলে মুনাফার হার প্রায় ১ শতাংশ কমে যাবে।

নতুন হার অনুযায়ী মেয়াদ শেষে মুনাফা ১০.৫০% পাওয়া যাবে।

আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার হার কমে হবে ৯.৫০%।

  • ডাকঘর সঞ্চয়পত্রের মুনাফা:

ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকের সাধারণ হিসেবে বর্তমানে মুনাফার হার ৭.৫০ শতাংশ। এতে কোন পরিবর্তন আনা হয়নি।

তবে ৩ বছর মেয়াদী ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক মেয়াদী হিসাবে পরিবর্তন এসেছে। এতে বর্তমানে মুনাফার হার ১১.২৮%।

আরো পড়ুন:
১৮ সেপ্টেম্বর থেকে কলকাতায় শুরু হয়েছে ‘জ্যাঁ কুয়ে ১৯৭১’ সিনেমার শুটিং 
মেগা সিটিকে ঠাণ্ডা রাখার সহজ উপায়

এই খাতেও এখন ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ করলে মুনাফার হার হবে ১০.৩০%।

আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগে হবে ৯.৩০%।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে যে, বিনিয়োগকারীর ক্রমপুঞ্জিভূত বিনিয়োগ অর্থ্যাৎ বিভিন্ন ধাপে তিনি যে বিনিয়োগ করেছেন তা একসাথে হিসাব করে যে অঙ্ক আসবে তার উপর ভিত্তি করে নতুন মুনাফার হার অনুযায়ী মুনাফা দেওয়া হবে।

এই আদেশ জারির পর নতুন করে বিনিয়োগ করতে গেলে আগের বিনিয়োগও বিবেচনায় নিয়ে সেই হারে মুনাফা দেওয়া হবে।

যৌথ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে প্রত্যেক বিনিয়োগকারির সব ধরণের স্কিমে মোট বিনিয়োগের উপর হিসাব করে সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার নির্ধারণ করা হবে।

সেক্ষেত্রে বিনিয়োগকারির ব্যাক্তিগত এবং যৌথ দুই ধরণের বিনিয়োগই আসবে।

কিউরিয়াস ইউটিউব চ্যানেল

শেয়ার করুন -

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন